Source: 
Eisamay
https://eisamay.com/nation/lok-sabha-election-2024-criminal-cases-registered-against-252-out-of-1625-candidates-in-the-first-phase-of-poll/articleshow/109149674.cms
Author: 
অরুণিমা চক্রবর্তী
Date: 
09.04.2024
City: 

১৯ এপ্রিল ২১টি রাজ্য় ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের একাধিক আসনে ভোট হবে। আর ওই ভোটে এমন বহু প্রার্থী রয়েছেন যাঁদের বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টা, ধর্ষণ সহ নানা গুরুতর ফৌজদারি মামলা রয়েছে। তথাকথিক দাগিদের প্রার্থীর করার ক্ষেত্রে অবশ্য বাকি দলগুলোকে টেক্কা দিয়েছে বিজেপি। পদ্ম শিবিরের একাধিক প্রার্থীর বিরুদ্ধে রয়েছে মারাত্মক অভিযোগ। প্রথম দফায় ভোটে লড়াইয়ের ময়দানে নামা প্রার্থীদের হলফনামা ব্লিশেষণ করে সোমার এক রিপোর্ট প্রকাশ করেছে ADR।

হাইলাইটস

  • প্রথম দফায় ভোটের লড়াইয়ে অংশ নেওয়া ২৫২ জন এমন প্রার্থীর বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা
  • আগামী ৪ জুন নির্বাচনের ফল প্রকাশ করা হবে
  • শেষ ধাপের ভোট হবে ১ জুন

এক দশক আগের কথা। লোকসভা ভোটের প্রচারে বিজেপি তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী নরেন্দ্র মোদী প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন ক্ষমতায় এলে গুরুতর ফৌজদারি অপরাধে যুক্ত সাংসদ-বিধায়কদের বিশেষ আদালত পর্যন্ত তিনি টেনে নিয়ে যাবেন তিনি। ক্ষমতায় আসলে দোষীদের এক বছরের মধ্য়ে জেলে পাঠাবেন বলেও প্রতিশ্রুতি মিলেছিল তাঁর গলায়। তারপর গঙ্গা দিয়ে অনেক জল গড়িয়েছে, তবে ছবিটা বদলায়নি। দিল্লির কুর্সিতে তাঁর ১০ বছর পূর্তির আগে যে ছবিটা সামনে এল তার থেকে সবটা পরিষ্কার।

১৯ এপ্রিল থেকে দেশে শুরু লোকসভা ভোট। ওই দিন প্রথম দফায় ভোট। এবার ভোট হবে সাত দফায়। ভোট নজরদারি সংস্থা 'ন্যাশনাল ইলেকশন ওয়াচ' এবং 'অ্যাসোসিয়েশন অফ ডেমোক্র্যাটিক রিফর্মস' (ADR)। তাদের রিপোর্ট বলছে ২১টি রাজ্য় ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলে ১০২ লোকসভা আসনের জন্য ১৬২৫ জন প্রার্থী ভাগ্য় পরীক্ষার জন্য় নামেছেন নির্বাচনী ময়দানে। ভোট নজরদারি সংস্থা 'ন্যাশনাল ইলেকশন ওয়াচ' এবং 'অ্যাসোসিয়েশন অফ ডেমোক্র্যাটিক রিফর্মস' (ADR) রিপোর্ট বলছে তাঁদের মধ্যে ২৫২ জন এমন প্রার্থী রয়েছেন যাঁদের বিরুদ্ধে কোনও না কোনও ফৌজদারি মামলা রয়েছে। অর্থাৎ প্রথম দফায় অংশ নেওয়া প্রার্থীদের মধ্যে ১৬ শতাংশের বিরুদ্ধেই বিভিন্ন ফৌজদারি মামলা ঝুলছে। ৪৫০ জন প্রার্থী কোটিপতি। মধ্যপ্রদেশের ছিন্দওয়াড়া আসন থেকে কংগ্রেসের নকুল নাথ সবচেয়ে ধনী প্রার্থী। তিনি তার হলফনামায় ৭১৬ কোটি টাকার সম্পদের উল্লেখ করেছেন।

সোমবার সন্ধ্যায় প্রথম ধাপের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী মোট প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ করেছে নির্বাচন কমিশন। এর মধ্যে ১৬২৫ জন প্রার্থী প্রথম দফায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ভাগ্য পরীক্ষায় নেমেছেন ১৪৯১ জন পুরুষ ও ১৩৪ জন নারী। প্রথম দফার ভোটে তামিলনাড়ুতে ৩৯টি লোকসভা আসনের জন্য সর্বাধিক সংখ্যক প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতার দৌড়ে রয়েছেন ওই দিন। এখানে ৩৯টি আসনে ৯৫০ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। পুদুচেরির একটি আসনের জন্য সর্বোচ্চ ২৬ জন প্রার্থী এবং নাগাল্যান্ডের একটি আসনের জন্য সর্বনিম্ন তিনজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। উত্তর প্রদেশের আটটি আসনে হতে চলা নির্বাচনে ৮০ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। একইভাবে, প্রথম দফায় পশ্চিমবঙ্গের তিনটি আসনের জন্য ৩৭ জন প্রার্থী, রাজস্থানের ১২টি আসনের জন্য ১১৪ জন এবং মহারাষ্ট্রের পাঁচটি আসনের জন্য ৯৭ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতার দৌড়ে নাম লিখিয়েছেন।

প্রথম দফার ভোটের ১,৬২৫ জন প্রার্থীর মধ্যে ১,৬১৮ জনের মনোনয়নের সঙ্গে জমা দেওয়া হলফনামা পরীক্ষা করেছিল 'ন্যাশনাল ইলেকশন ওয়াচ' এবং এডিআর। এডিআর রিপোর্টে উল্লেক করা হয়েছে ১৬১৮ প্রার্থীর মধ্যে ২৫২ জনের বিরুদ্ধে কোনও না কোনও ফৌজদারি মামলা রয়েছে। তাঁদের মধ্যে ১৬১ জনের বিরুদ্ধে খুন, অপহরণের মতো গুরুতর অভিযোগ রয়েছে। এর মধ্যে ১৮ প্রার্থীর বিরুদ্ধে নারী নির্যাতন ও একটি ধর্ষণের অভিযোগে মামলা রয়েছে। প্রার্থীরা তাঁদের নিজ নিজ হলফনামায় এসব তথ্য দিয়েছেন।
প্রতিবেদনে আরও প্রকাশ করা হয়েছে যে নির্বাচনে ভাগ্য পরীক্ষা করা প্রার্থীদের মধ্যে ৪৬০ জন কোটিপতি। এর মধ্যে মধ্যপ্রদেশের ছিন্দওয়াড়া আসন থেকে কংগ্রেসের নকুল নাথ সবচেয়ে ধনী প্রার্থী। দ্বিতীয় স্থানে, তামিলনাড়ুর AIADMK-এর অশোক কুমার ৬৬২ কোটি টাকার সম্পদ দেখিয়েছেন। তামিলনাড়ুর বিজেপি প্রার্থী দেবনাথন ৩০৪ কোটি টাকার সম্পদ দেখিয়েছেন।

দলগত ভাবে বিজেপির সর্বাধিক প্রার্থী ফৌজদারি মামলায় অভিযুক্ত। ৭৭ জনের মধ্যে ২৮ জন ফৌজদারি মামলায় অভিযুক্ত। অর্থাৎ ৩৬ শতাংশ। পরের স্থানেই রয়েছে কংগ্রেস। তাঁদের ৫৬ জন প্রার্থীর মধ্যে ১৯ জন (৩৪ শতাংশ) ফৌজদারি মামলায় অভিযুক্ত থাকার কথা হলফনামায় জানিয়েছেন। তবে শতাংশের হিসাবে আরজেডি এক নম্বরে রয়েছে। বিহারে প্রথম দফার ভোটে লালুপ্রসাদের দলের যে চার জন প্রার্থী রয়েছেন তাঁদের প্রত্যেকে, অর্থাৎ ১০০ শতাংশ অভিযুক্ত নানা ফৌজদারি মামলায়। শতাংশের হিসাবে পরের তিনটি স্থানে রয়েছে DMK (৫৯ শতাংশ), সমাজবাদী পার্টি (৪৩ শতাংশ), তৃণমূল কংগ্রেস (৪০ শতাংশ)।

© Association for Democratic Reforms
Privacy And Terms Of Use
Donation Payment Method